Monday, August 20, 2018

PATRIOTISM by Sir Walter Scott - Bangla Translation and Summary - প্যাট্রিওটিজম - স্যার ওয়াল্টার স্কট - বাংলা অর্থ ও সারমর্ম

PATRIOTISM by Sir Walter Scott - Bangla Translation and Summary




PATRIOTISM by Sir Walter Scott - Bangla Translation and Summary - প্যাট্রিওটিজম - স্যার ওয়াল্টার স্কট - বাংলা অর্থ ও সারমর্ম 

 অনুবাদঃ মারুফ মাহমুদ

প্যাট্রিওটিজম - স্যার ওয়াল্টার স্কট - বাংলা অর্থ ও সারমর্ম 
মানুষটি নিঃশ্বাস নেয় তার মৃত আত্মা দিয়ে
যে নিজে থেকে কখনোই বলে নি
এটা আমার নিজের আপন মাতৃভূমি
সে কখনো তার আত্মায় দহন অনুভব করে না?  
যেন বাড়িতেই সে তার পদচিহ্নকে আবর্তিত করে
কোন বিদেশী তীরভূমিতে যখন তার পদচারিত হয়।  
যদি এমন কাউকে পাও, তবে তাকে ভাল করে চিহ্নিত কর
তার জন্যে কোন গায়কদল পরমানন্দে গান গাইবে না
তার খেতাব হতে পারে উচু, গর্বীত তার নাম
যতটুকু আত্মা চাইতে পারে তার চেয়েও বেশী হতে পারে তার সম্পদ
ঐ সমস্ত উপাধী শক্তি ও সম্পদ থাকা সত্বেও
সে সবই একিভূত/ঘণীভূত করে তার নিজের জন্যে  
সে জীবিত থাকতেই তার নাম, খ্যাতি ও জশ ছিনিয়ে নেয়া উচিত
এবং দুইবার মৃত্যুবরনকারীকে সবাই ভূলে যায়/ নামিয়ে দেয়  
-দূষিত ময়লা ধূলোতে যেখান থেকে তার হয়েছিল উৎপত্তি

তার জন্যে কেউ কাঁদে না, না সম্মান করে, না করে তার গীত বন্দনা।


Original Text of this poem 

PATRIOTISM by Sir Walter Scott

BREATHES there the man with soul so dead,
Who never to himself hath said,
    'This is my own, my native land!'
Whose heart hath ne'er within him burn'd
As home his footsteps he hath turn'd
    From wandering on a foreign strand?
If such there breathe, go, mark him well;
For him no Minstrel raptures swell;
High though his titles, proud his name,
Boundless his wealth as wish can claim;
Despite those titles, power, and pelf,
The wretch, concentred all in self,
Living, shall forfeit fair renown,
And, doubly dying, shall go down
To the vile dust from whence he sprung,
Unwept, unhonour'd, and unsung.


সারমর্মঃ 
এই কবিতায় কবি এমন এক প্রকারের লোকদের কথা বলেছেন যারা দৈহিকভাবে বেচে থাকলেও আত্মার দিক থেকে তারা মৃত্যুবরণ করেছে। দেহে জীবন থাকার কারনে যদিও তারা নিঃশ্বাস নেয় তবুও কবির কাছে তারা মৃত এই প্রকারের মৃত মানুষেরা কখনোই বলতে পারে না যে এই দেশ তার নিজের মাতৃভূমি। কারন তাদের আত্মা বলে কিছু নেই। কবির মতে, যেহেতু তার ভিতরে কোন আত্মা নেই, তার ভিতরে কখনো তার দেশের জন্যে দহন হয় না। যদিই এই ধরনের কোন লোক কখনো কোন দূরদেশে হারিয়েও যায় তবে তার দেশে আসার জন্যে কোন মায়া থাকে না। কবি আরো বলেন যদি এই রকমের কাউকে তুমি কাছে পাও তবে তাকে চিহ্নিত কর তাকে এই বিষয়ে দোষারোপ কর।  এবার কবি এই ধরনের লোকের সম্মান নিয়ে কথা বলেছেন। তার মৃত্যুর পর তার সম্মানে কোন গায়কি দল গান গাইবে না। হতে পারে তার বিরাট নাম ডাক, বিরাট তার উপাধি, এমনকি তার সম্পদ হতে পারে এতো বেশী যে মানুষের অন্তর এতটুকু সম্পদ চাইতেও পারে না। কিন্তু তার এই নাম, উপাধি, শক্তি সম্পদ শুধু তার নিজের জন্যেই করে। এতে দেশের কল্যানের কিছু থাকে না। যদি সে বেচে থাকে , মানুষ তাকে ভূলে যায়। সে মৃত্যু বরণ করলে তাকে সে ধূলো ময়লাতেই ফিরে যেতে হয় যেখান থেকেই তার জন্ম। আর তার মৃত্যু হয় দুইবার একবার তার আত্মার মৃত্যু ২য় বার তার দেহের মৃত্যু। তার মৃত্যুর পর তার জন্যে বা তার শোকে কেউ কাঁদে না বা তার সম্মানে কেউ কোন শোকগীত গায় না। 



No comments:

Post a Comment

Trending