Sunday, July 22, 2018

The Tempest - William Shakespeare - bangla - দ্যা টেমপেস্ট - বাংলা part 1 of 2


The Tempest - William Shakespeare - Bangla - দ্যা টেমপেস্ট - বাংলা  part 1 of 2 
দ্যা টেমপেস্ট - ২ পর্বের ১ম পর্ব 
উইলিয়াম শেক্সপিয়ার

The Tempest original text

চরিত্র সমূহঃ
১। প্রসপেরো নাটকের মূল নায়ক। ২০ বছর আগের মিলানের ডিউক ছিলো।
২। মিরান্ডা- প্রসপেরোর কন্যা ।  ফার্ডিনান্দ এর প্রেয়সী।
৩। এরিএল প্রসপেরোর দাস,
৪। ক্যালিবান -  সাইকোরাক্স এর সন্তান। প্রসপেরোর দাস
৫। ফার্ডিনান্দ- আলনসোর ছেলে ।
৬। আলনসো কিং অফ নেপলস
৭। এনটোনিও প্রসপেরোর ভাই।
৮। সেবাস্তিয়ান আলনসোর ভাই।
৯। গনজালো প্রসপেরোর প্রতি অনুগত একজন বৃদ্ধ এবং সৎ ভূস্বামী।
১০। ত্রিনকুলো ও স্টেফানো ত্রিনকুলো হল রাজসভার ভাড়, রাজসভার প্রধান খানসামা
১১। সারেং বোটসোয়াইন
১২। সাইকোরাক্স- অদৃশ্য চরিত্র ডাইনী

দ্যা টেমপেস্ট এর ঘটনা প্রবাহ
অ্যালোনসোর কন্যা ক্লারিবেলের সাথে আফ্রিকার তিউনিশিয়ার রাজপুত্রের বিয়েতে আসার পর ইতালিতে যাওয়ার পথে আলোনসো, ফার্দিনান্দ, সেবাস্তিয়ান, এন্টোনিও, গঞ্জালো, স্টেফানো এবং ত্রিনকুলো যে জাহাজে করে ফিরে যাচ্ছিলো তাতে একটি ঝড় আঘাত হানে। কেবলমাত্র উদ্বেগহীন সারেং ছাড়া,  জাহাজের যাত্রী এবং নাবিক সবাই ভয় পেয়ে যায়। ঝড়ের পাশাপাশি বিদ্যুৎ চমকাচ্ছিল আর সকল নাবিকেরা চিৎকার করে উঠছিল এমনভাবে যেন এখনি বোধহয় বিদ্যুৎ আঘাত করবে। আর সকলেই জাহাজডুবির জন্যে প্রস্তুত হয়েছিল। 



এর পরের দৃশ্যে আমরা দেখতে পাই মিরান্ডা এবং প্রসপেরো দুজনেই সমূদ্রের তীরে দাড়িয়ে আছে। মিরান্ডা তার বাবাকে বলছে ঝড়ের কবলে পড়ে ভেঙ্গে যাওয়া জাহাজের যাত্রীদের রক্ষা করতে। তার বাবা তাকে প্রবোধ দেয় এই বলে যে সবকিছুই ঠিক আছে আর এখনি সময়, মিরান্ডা তার অতীত  ও নিজের সম্পর্কে অনেক কিছুই শিখতে পারবে। সে তাকে বলে যে জাহাজের এই ধ্বংসের পিছনে তার হাত রয়েছে এবং সবকিছুই সে খুব সন্দর ভাবে সাজিয়েছে। এরপর সে মিরান্ডাকে একটি গল্প বলতে শুরু করে , যে গল্পটি সে আগে অনেকবার বলতে শুরু করেও শেষ করতে পারেন নাই। তিনি বলেন যে তিনি এক সময় মিলান এর ডিউক ছিলেন, তার ভাই এন্টোনিও তার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে তাকে সরিয়ে দেয়।  এ কাজে সাহায্য করে নেপলসের রাজা আলনসো। তাদেরকে ধুকে ধুকে মরার জন্যে সমূদ্রের মাঝে ফেলে যায়। বিশ্বাসী গনজালোর সহায়তায় তারা বেচে যায়, যে কিনা তাকে তার বইগুলো এবং খাবার যোগান দেয়। তার সেই বই গুলোই ছিল তার জাদু এবং শক্তির উৎস। প্রসপেরো এবং তার কন্যা মিরান্ডা এই দ্বীপে আসে আর এখানে ২০ বছর কেটে যায়। আর ভাগ্যই তার শত্রুদের আজ তার হাতের মূঠোয় এনে দিয়েছে আর এই ঝড় সে নিজেই সৃষ্টি করেছেন।
এই গল্পটি বলার পর সে তার মেয়েকে জাদু করলো এবং সে ঘুমিয়ে যায়। তারপর সে এরিএল কে ডাকে। তাদের দুজনের কথোপকথন থেকে জানা যায়, এরিএল সমূদ্রে ঝড় তোলে এবং জাহাজের মাস্তুলে আগুন ধরিয়ে দেয়। সে তাকে নিশ্চিত করে যে জাহাজের প্রত্যেকেই আলাদা আলাদা কয়েকটি দলে বিভক্ত অবস্থায় দ্বীপে অবতরন করতে পেরেছে। এরিএল তার মালিক প্রসপেরোকে মনে করিয়ে দিল যদি সে প্রসপেরোর কাজ গুলো কোন প্রকার অভিযোগ ছাড়া করে, তবে তার মালিক তাকে এক বছর আগেই মুক্তি দেবে। প্রসপেরো তাকে কিছুটা ভৎসনা করলো আর মনে করিয়ে দিল তার পূর্বের দূঃসহ জীবনের কথা যা থেকে সে তাকে উদ্ধার করেছে।

প্রসপেরো এই দ্বীপে আসার আগে সাইকোরাক্স নামের এক ডাইনী তাকে ২০ বছর ধরে একটি গাছের ভিতরে আটকে রেখেছিল। এরিএলকে গাছের ভেতরে আটকা অবস্থায় রেখেই সাইকোরাক্স মৃত্যুবরন করেছিল। প্রসপেরো এই দ্বীপে নেমে তাকে মুক্ত করে। প্রসপেরো তাকে সমুদ্র পরীর রুপ নিতে আদেশ  দেয় আর বলে সে যেনো অদৃশ্য হয়ে যায়  শুধুমাত্র প্রসপেরো ছাড়া আর কেউ যেনো তাকে দেখতে না পারে।  

মিরান্ডার ঘুম ভাঙ্গে আর তারা দুইজনে সাইকোরাক্স এর সন্তান ক্যালিবান এর কাছে যায়। ক্যালিবান তাদেরকে অভিশাপ দেয়। তার অকৃতজ্ঞ আচড়নের কারনে মিরান্ডা আর প্রসপেরো তাকে তীব্র ভর্ৎসনা করে প্রসপেরো তাকে আগুন ধরানোর জন্যে কাঠ আনতে বলে। এরিএল ভিতসন্ত্রস্ত ফার্দিনান্ড এর কাছে গিয়ে বাদ্য বাজায়। মিরান্দা আর ফার্দিনান্ড একে অপরের সামনে পড়ে যায়। মিরান্ডা ক্যালিবান আর তার পিতার পরে ৩য় একজন পুরুষকে আজ দেখেছে।  প্রসপেরো খুব খুশি কারন তার মেয়ের জন্যে ভবিষ্যত বিবাহ পরিকল্পনা ফলে যাচ্ছে। একটা জিনিস তার চিন্তাকে কিছুতা বাধাগ্রস্ত করল, আর তা হল তাদের সম্পর্কতা খুব তাড়াতাড়ি ঘটে গেছে। প্রসপেরোকে সে মিলানের রাজপুত্র হওয়ার ভান করার জন্যে অভিযুক্ত করল। ফার্দিনান্ড তার তরবারি কোষমুক্ত করলে, প্রসপেরো তাকে জাদু করল এবং বন্দি করে ফেলল, যদিও মিরান্ডা তার হয়ে ক্ষমা চাইল। এরপর সে এরিএলকে আর একটি রহস্যময় কাজে পাঠালো।


দ্বীপের অন্য একটি অংশে আলনসো, এনটোনি্ও,‌ সেবাস্তিয়ান, গনজালো ও অন্যান্যরা ছিল। তারা নিজেদের নিরাপত্তার জন্যে খুশি হল কিন্তু  ফার্দিনান্ড এর ব্যাপারে দূঃচিন্তা করছিল।  আলনসো তো বলেই ফেলল যদি আমার মেয়েকে তিনিশিয়ার রাজপুত্রের সাথে বিয়ে না দিতাম তবে আজ আমার পূত্রকে হারাতে হত না। এরিএল আবার বাদ্য বাজালো যা সেবাস্তিয়ান আর এন্টনিও ছাড়া সবাইকে ঘুম পাড়িয়ে দিল। 


 


এন্টনিও , সেবাস্তিয়ান কে বলল,তাদের ঘুমন্ত সহযোগীদের হত্যার উপকারিতা অর্থাৎ সেবাস্তিয়ান নেপলসের রাজা হতে পারে যদি সে আলনসোকে হত্যা করে। আর ফার্দিনান্দ যদি মারা যায় আর ক্লারিবেল তো বহু দূরে তার সম্পদের দাবীর জন্যে। সেবাস্তিয়ান তার কথায় প্রণোদিত হয়।  সে তার ভাইলে ঘুমন্ত অবস্থায় তরবারি দিয়ে আঘাত করতে উদ্দত হয়। এরিএল গনজালোর ঘুম ভাঙ্গিয়ে দেয়। সে চিৎকার করে সবাইকে জাগিয়ে দেয়। 

বাকিটুকু পড়ার জন্যে পরবর্তী অংশ দেখুন 



1 comment:

  1. "দ্যা টেমপ্লেস্ট" আর "এস ইউ লাইক ইট" টা পড়লাম।এতো সুন্দর করে সবকিছু গুছিয়ে লিখার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

    ReplyDelete

Trending