Monday, July 8, 2019

The Duchess of Malfi - John Webster - Bangla Translation - Act - 3 - Scene - 3-4-5

The Duchess of Malfi - John Webster - Bangla Translation - Act - 3 - Scene - 3-4-5

Previous Part 

The Duchess of Malfi - John Webster - Bangla Translation - Act - 3 - Scene - 3-4-5
তৃতীয় অঙ্ক - তৃতীয় দৃশ্য - দৃশ্যপট ও রোম। কার্ডিনালের প্রাসাদের একটি কক্ষ
[কার্ডিনাল, ফার্ডিনান্ড, ম্যালাটেস্টি, পেস্কারা, ডেলিও এবং সিলভিওর প্রবেশ]
কার্ডিনালঃ তাহলে আমাকে কি অবশ্যই সৈনিকবেশ ধারণ করতে হবে?
ম্যালাটেস্টিঃ সম্রাট জানতে পেরেছেন যে যাজকের পবিত্র পোশাক ধারণের পূর্বে আপনি একজন সুযোগ্য যোদ্ধা ছিলেন। তাই বিখ্যাত সেনাধ্যক্ষ ল্যানয় ও সৌভাগ্যবান যোদ্ধা মার্কুইস অব পেস্কারার পাশাপাশি আপনাকেও তিনি সেনাবাহিনীর নেতৃত্বভার অর্পণ করেছেন।
কার্ডিনালঃ এই ল্যানয় কি সেই ব্যক্তি যিনি ফ্রান্সের রাজাকে বন্দী করার গৌরব অর্জন করেছিলেন?
ম্যালাটেস্টিঃ হ্যা, আমি তার কথাই বলছি। দেখুন নেপলসের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সুদৃঢ় করার একটি পরিকল্পনা এই কাগজে রয়েছে।
ফার্ডিনান্ডঃ ধারণা করছি ম্যালাটেস্টি নামের এই মহান কাউন্ট কোন একটা দায়িত্ব পেয়েছেন।
ডেলিওঃ প্রভু, উনি কোন দায়িত্বই পাননি। সৈন্যদের নাম সম্বলিত বাঁধানো খাতার মার্জিনে লেখা আছে যে তিনি স্বেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব পালন করেছেন।
ফার্ডিনান্ডঃ সৈনিকের গুণাবলী তার মাঝে নেই।
ডেলিওঃ উনি ব্যথা নিরাময়ের জন্য ক্ষয়ে যাওয়া দাঁতের ফাঁকে গান পাউডার গুঁজে রাখেন।
সিলভিওঃ রসুন সহযোগে টাটকা গোমাংস ভক্ষণের পূর্ণ খায়েস নিয়ে তিনি সেনাশিবিরে এসেছেন; রান্নার সুঘ্রাণ দূর না হওয়া অবধি এখানেই থাকবেন এবং তারপর সরাসরি দরবারে ফিরে যাবেন।
ডেলিওঃ তিনি সিটি ক্রনিকলে বর্ণিত সাম্প্রতিক যুদ্ধ-বিগ্রহের খবরগুলো পড়েন। তিনি দুজন কারিগর নিযুক্ত করেছেন। ওরা টিন দিয়ে যুদ্ধদৃশ্যের মডেল তৈরী করে তাঁকে দেখায়।
সিলভিওঃ তারপর তিনি বই পড়ে পড়ে যুদ্ধ যুদ্ধ খেলেন।
ডেলিওঃ আমার ধারণা, তিনি দিনপঞ্জী অনুযায়ী শুভদিনগুলো বেছে নেন এবং অশুভ দিনগুলো এড়িয়ে যান। এ দেখুন তার হৃদয়েশ্বরীর স্কার্ফ তার সঙ্গে রয়েছে।
সিতভিওঃ হ্যা, তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেন যে এ রেশমী কাপড়ের সম্মানে তিনি অনেক কিছুই করতে পারেন।
ডেলিওঃ আমার তো মনে হয় স্কার্ফটা যাতে শত্রুপক্ষের হস্তগত না হয় সেজন্য তিনি যুদ্ধের ময়দান থেকে চম্পট দিবেন।
সিলভিওঃ বারুদের গন্ধে স্কার্ফের সুগন্ধ নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় তিনি ব্যতিব্যস্ত।
ডেলিওঃ একবার দেখেছিলাম যে এক ওলন্দাজকে দাম্ভিক বলে অভিহিত করায় সে উনার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছিল। সে তাঁর মাথায় মাক্কেটের নলের মুখাকৃতি একটা ছ্যাদা করে দিয়েছিল।
সিলডিওঃ আহা, এ ব্যাটা যদি তার মাথায় কামানের মুখে মত একটা ফুটো করে দিত! ভদ্রলোক আসলে ঘোড়া সাজানোর কাপড়ের মত বস্তু যা প্রয়োজন হয় কেবল দরবার স্থানাস্তরের সময় ।
[বসোলার প্রবেশ]
পেস্কারাঃ বসোলা এসেছে দেখছি। ব্যাপারটা কি? তার এখানে কি কাজ থাকতে পারে? কার্ডিনালদের পরিবারে কোন মতভেদ হয়েছে কি? অভিজাত পরিবারের মধ্যে এক ধরনের দলাদলি থাকেই। বিবাদমান অবস্থায় তাদের শেয়ালের পালের সাথে তুলনা করা যায়। তাঁদের লেজে আগুন ধরে যায় এবং তারপর ঐ আগুনে তারা পুরো দেশ ছারখার করে ফেলেন।
সিলভিওঃ বসোলা নামধারী এই ব্যক্তিটির স্বভাব-চরিত্র কেমন?
ডেলিওঃ পাডুয়ায় থাকার সময়ই আমি তাকে চিনতাম। সে এক অদ্ভুত প্রকৃতির বিদ্বান ব্যক্তি। হারকিউলিসের মুগুরের কয়টি গ্রন্থি ছিল, একিলিসের দাড়ির রঙ কি, হেক্টর কখনো দাতের ব্যথায় কষ্ট পেয়েছিলেন কিনা ইত্যাদি বিষয় জানার জন্য সে লেখাপড়া করে। জুলিয়াস সিজারের নাকের সাথে জুতা পরানোর হর্নের সাদৃশ্য জানতে গিয়ে যে দৃষ্টিশক্তির অর্ধেক ক্ষয় করেছে। আর এই সবই সে করেছে দার্শনিক হিসাবে নাম কেনার জন্য।
পেঙ্কারাঃ প্রিন্স ফার্ডিনান্ডের দিকে লক্ষ্য করুন। তার চোখের মাঝে যেন স্যালামান্ডার ভর  করেছে। তাঁর দৃষ্টির তীব্রতা যেন অগ্নির হিংস্রতাকেও ব্যঙ্গ করছে।
সিলভিওঃ মাইকেল এঞ্জেলো যে কয়টি সুন্দর মুখচ্ছবি অঙ্কন করেছেন তার তুলনায় অনেক বেশী সংখ্যক মুখশ্রী ঐ কার্ডিনাল নির্যাতনের মাধ্যমে বিকৃত করেছেন। দুর্যোগের পূর্বে পরপইজ যেমন করে পানি থেকে নাক উঁচু করে কার্ডিনালও তেমনই মাথা চারা দিয়ে দাঁড়ান।
পেস্কারাঃ লর্ড ফার্ডিনান্ড হাসছেন।
ডেলিওঃ দেখে মনে হয় যেন প্রাণঘাতী কামান থেকে গুলির ধোঁয়া বেরোনোর পূর্বমুহূর্তে অগ্নিশিখা বের হচ্ছে।
পেঙ্কারাঃ বড় বড় রাষ্ট্রনায়কদের জীবনে জীবনযন্ত্রণা ও মৃত্যুশোকের দ্বন্দ্ব বিরাজমান।
ডেলিওঃ ঐ ধরনের অস্বাভাবিক নীরবতার মাঝেই ডাইনীরা তাদের মোহজাল বিস্তার করে।
কার্ডিনালঃ সে (ডাচেস) কি রোদ বৃষ্টি থেকে বাঁচার জন্য ধর্মকে আচ্ছাদন হিসাবে ব্যবহার করছে?
ফার্ডিনান্ডঃ তাহলে ঐ কারণেই সে নিপাত যাক। আমার মনে হচ্ছে যেন তার সৌন্দর্য ও দোষ ক্রটি একত্রিত হয়ে ধবলকুষ্ঠ রোগের দাগের মতো দেখায়। দাগ যতই সাদা হবে ততই তা কদর্য রূপ ধারণ করবে। আমার প্রশ্ন তার অসহায় বাচ্চাগুলো কখনও খ্রিষ্টধর্মে দীক্ষিত হবে কিনা?
কার্ডিনালঃ আমি অনতিবিলম্বে অ্যানকোনা সরকারকে অনুরোধ জানাব যেন ওদের বিতাড়িত করা হয়।
ফার্ডিনান্ডঃ তুমি তো লরেটো যাত্রা করছ নয় কি? তোমার অভিষেক অনুষ্ঠানে আমি উপস্থিত থাকতে পারব না। বিদায়।
[বসোলার প্রতি] আমার অল্পবয়সী বোনপো ডিউক অব মালফির কাছে চিঠি লিখে তার মার তথাকথিত সতীত্বপূর্ণ আচরণের কথা জানাও। সে আমার বোনের প্রথম স্বামীর ঔরসজাত।
বসোলাঃ আমি এ দায়িত্ব পালন করব।
ফার্ডিনান্ডঃ (স্বগত) অ্যান্টনিও! একটা ক্রীতদাস যার শরীর থেকে কালি-কলম ও কাউন্টারের গন্ধ বেরোয়, অডিটের সময় ব্যতীত আর কোন সময়ই তাকে ভদ্রসন্তান বলে মনে হয় নি। [বসোলার প্রতি] এখনি চলে যাও এবং একশ পঞ্চাশ জন অশ্বারোহী সৈন্য সমেত পুলের পাদদেশে আমার সাথে দেখা কর।



তৃতীয় অঙ্ক
চতুর্থ দৃশ্য
স্থানঃ লরেটোয় অবস্থিত মাতা মেরীর উপাসনালয়
দুজন তীর্থযাত্রীর প্রবেশ
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ আমি অনেক উপাসনালয় ঘুরেছি কিন্তু এই উপাসনালয়ের তুলনায় ভাল উপাসনালয় দেখিনি।
দ্বিতীয় তীর্থযাত্রীঃ কার্ডিনাল অব অ্যারাগন আজ কার্ডিনালের দায়িত্ব থেকে ইস্তফা দিবেন। এদিকে পূর্বপ্রতিজ্ঞা পূরণের জন্য কার্ডিনালের বোন ডাচেসও এই তীর্থস্থানে এসেছেন। আশা করি একটা আঁকজমকপূর্ণ উৎসব দেখতে পাব।
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ এ বিষয়ে কোন সংশয় নেই। ঐ তারা আসছেন।
[এখানে সৈনিকের বেশে সৈনাধ্যক্ষের পদে কার্ডিনালের অভিষেক অনুষ্ঠান হল। উপাসনালয়ের মেঝেয় কার্ডিনাল তাঁর ক্রস, হ্যাট, গাউন ও আংটি খুলে রাখলেন এবং তাঁকে তরবারী, শিরস্ত্রাণ, ঢাল এবং বর্শা পরানো হল। মূকাভিনয়ের মাধ্যমে দেখানো হল যে অ্যান্টনিও, ডাচেসঃ তাঁদের সন্তানেরা উপাসনালয়ে উপস্থিত হওয়ার পর কার্ডিনাল ও অ্যানকোনা সরকারের প্রতিনিধিদের দ্বারা বিতাড়িত হলেন। পুরো অনুষ্ঠানটি চলার সময় খুব ভাবগম্ভীর সুরে বিভিন্ন পাদ্রী একটি গান গাইলেন তারপর তীর্থযাত্রীরা ব্যতীত আর সকলেই চলে গেলেন। গানের মমার্থ নিম্নরূপ : সামরিক সম্মান এবং অস্ত্র আপনার জীবনকাহিনীকে সুসজ্জিত করুক এবং আপনি চিরস্থায়ী গৌরব ও খ্যাতি লাভ করুন। দুর্ভাগ্য চিরদিনের মত আপনার জীবন থেকে পলায়ন করুক। কোন দুর্যোগ যেন আপনার কাছে ঘেঁষতে না পারে। সদগুণের কারণেই আপনার সম্মান বৃদ্ধি পেয়েছে তাই আমি একাই আপনার প্রশস্তি গাইছি। ধর্মীয় বিষয়ে আপনি যে জ্ঞানচর্চা করেছেন এখন তা সামরিক বাহিনীতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠার কাজে ব্যবহৃত হবে। এই ঢিলা-ঢালা পোশাক একপাশে নামিয়ে রাখুন এবং নিজেকে অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত করুন। তাতে আপনাকে সুন্দর দেখাবে। হে সুযোগ্য ব্যক্তিদের মাঝে যোগ্যতম, এই রূপে সুসজ্জিত হয়ে স্বীয় বাহিনীকে যুদ্ধের পতাকাতলে সমবেত করে সাহসিকতার সাথে নেতৃত্ব দিন। সামরিক অভিযান পরিচালনার ক্ষেত্রে আপনি যেন সৌভাগ্যবান বলে প্রমাণিত হন। আপনি যেন সুকৌশলে দক্ষভাবে নিজেকে দিক নির্দেশনা দেন। বিজয় যেন আপনার করায়ত্ত হয়। আপনার শক্তিমত্তার সুখ্যাতি যেন উচ্চকণ্ঠে গীত হয়। বিজয়ের উল্লাসঃ মুকুটে আপনি ভূষিত হন এবং আপনার উপর আর্শীবাদের বর্ষণধারা নেমে আসুক।"]-
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ পরিস্থিতির কি অদ্ভুত পরিবর্তন! কে ভাবতে পেরেছিল যে এত উচ্চবংশীয়া একজন রমণী এত নীচু ঘরের একজন লোককে নিয়ে ঘর বাঁধবেন? তথাপি বলতে হয় কার্ডিনাল তাঁর প্রতি অতিরিক্ত নিষ্ঠুর আচরণ করেছেন।
দ্বিতীয় তীর্থযাত্রীঃ তাদেরকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ কিন্তু আমার প্রশ্ন করতে ইচ্ছা হয় যে একজন স্বাধীন শাসনকর্তার উপর কোন ক্ষমতাবলে অ্যানকোনা সরকার নিয়ন্ত্রণ খাটিয়েছেন।
দ্বিতীয় তীর্থযাত্রীঃ শুনুন, জনাব। অ্যানকোনা একটি স্বাধীন রাজ্য। তদুপরি ডাচেসের ভ্রাতার নিকট থেকে পোপ তার লালসার কথা জানতে পেরেছেন এবং পরলোকগত স্বামীর যে সম্পত্তি ও উপাধির অধিকারী তিনি হয়েছিলেন তা দখল করে গীর্জার তত্ত্বাবধানে অর্পণ করেছেন।
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ কিন্তু কোন আইনের বলে এ পদক্ষেপ নেওয়া হল?
দ্বিতীয় তীর্থযাত্রীঃ আমি নিশ্চিত যে ঐ ধরনের কোন আইন নেই। কেবল ডাচেসের ভ্রাতার প্ররোচনায় এ কাজ করা হয়েছে।
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ কার্ডিনাল জোর জবরদস্তি করে ডাচেসের আঙ্গুল থেকে কি খুলে নিলেন?
দ্বিতীয় তীর্থযাত্রীঃ ঐটি ছিল তাঁর বিয়ের আংটি। কার্ডিনাল কসম কেটেছিলেন যে প্রতিহিংসা চরিতার্থের জন্য ঐ আংটি তিনি নিবেদন করবেন।
প্রথম তীর্থযাত্রীঃ হায়, হতভাগ্য অ্যান্টনিও! যখন কোন লোককে কুয়ায় ঠেলে ফেলা হয় তখন ঐ ঘটনার পিছনে কার হাত ছিল সে প্রশ্নের গুরুত্ব থাকে না। কারণ স্বীয় দেহের ওজনই ঐ ব্যক্তিকে জলের তলায় টেনে নেয়। চল, আমরা এখান থেকে চলে যাই। ভাগ্যের খেলা দেখে এই উপসংহারেই উপনীত হতে হয় যে সমস্ত ঘটনাই দুর্ভাগা লোককে অধঃপতনের দিকে এগিয়ে নেয়।
[নিষ্ক্রমণ]






দি ডাচেস অভ মালফি
তৃতীয় অঙ্ক
পঞ্চম দৃশ্য
দৃশ্যপট ও লরেটোর নিকটবর্তী একটি স্থান
[ডাচেস, অ্যান্টনিও, তিনটি শিশু, ক্যারিওলা এবং ভৃত্যবৃন্দের প্রবেশ]
ডাচেসঃ আমরা অ্যানকোনা থেকে বিতাড়িত হলাম।
অ্যান্টনিওঃ হ্যা, দেখলে তো প্রতাপশালী লোকদের নিঃশ্বাসেরও কতখানি ক্ষমতা।
ডাচেসঃ আমাদের পরিচারকদের সংখ্যা কমতে কমতে শেষে এই অবস্থায় দাঁড়িয়েছে?
অ্যান্টনিওঃ এই গরীব লোকগুলো আমাদের অধীনে চাকুরী করে কিছুই পায়নি। তবুও তারা তোমার ভাগ্যের সাথেই নিজেদের ভাগ্য জড়ানোর ব্যাপারে শপথ নিয়েছে। কিন্তু যারা চতুর পাখী তাদের ডানায় এখন পালক গজিয়েছে ও তারা কেটে পড়েছে।
ডাচেস ওরা বুদ্ধিমানের কাজ করেছে। এই ঘটনা আমাকে মৃত্যুর কথা স্মরণ করিয়ে দিল। একইভাবে চিকিৎসকরাও দুহাত ভরে টাকা রোজগারের পর রোগীদের পরিত্যাগ করে চলে যান।
অ্যান্টনিওঃ দুনিয়ার রীতি ঠিক এমনই। যে ব্যক্তির সৌভাগ্যসূর্য অস্তগামী, তোষামোদকারীরা সবাই তার থেকে দূরে সরে যায়। ভিত দুর্বল হয়ে মাটিতে তলিয়ে যেতে থাকলে মানুষ তার উপর দালান নির্মাণ বন্ধ করে দেয়।
ডাচেসঃ আজ রাতে আমি এক অত্যাশ্চর্য স্বপ্ন দেখেছি।
অ্যান্টনিওঃ সেটা কি?
ডাচেসঃ মনে হল আমি রাজমুকুট পরে আছি। হঠাৎ করেই মুকুটে বসানো হীরাগুলো মুক্তায় পরিণত হল।
অ্যান্টনিওঃ এই স্বপ্নের আমি কি ব্যাখ্যা দিচ্ছি শোনঃ- অচিরেই তোমাকে কাঁদতে হবে। আমার মনে হয় মুক্তাগুলো তোমার সেই অশ্রুবিন্দুরই প্রতীক।
ডাচেসঃ উন্মুক্ত আকাশের নীচে বসবাসরত পাখীরা প্রকৃতির দানেই বেঁচে থাকে। তারা আমাদের চেয়ে সুখে আছে কারণ তারা পছন্দসই সঙ্গী বেছে নিতে পারে এবং বসন্ত এলে মনের আনন্দে গান গাইতে পারে।
[একটি চিঠিসহ বসোলার প্রবেশ]
বসোলাঃ সুখের বিষয় যে আমি আপনাদের নাগাল পেলাম।
ডাচেসঃ তুমি কি আমার ভাই এর নিকট থেকে এসেছ?
বসোলাঃ হ্যা আপনার ভাই লর্ড ফার্ডিনান্ড আপনাকে ভালবাসা জানিয়েছেন এবং আপনার নিরাপত্তার জন্য শুভ কামনা করেছেন।
ডাচেসঃ তুমি তার কুমতলবকে সাদা রঙ দিয়ে ঢাকতে চাইছ। দেখ, এ হল ঝড়ের পূর্ব মুহূর্তে সাগরে বিরাজমান শান্ত আবহাওয়ার সমতুল্য। প্রতারকরা যাদের বেশী ক্ষতি করতে ইচ্ছুক তাদের উদ্দেশ্যেই সুন্দর সুন্দর কথা বলে থাকে।
[চিঠিটি পাঠ করতে লাগলেন]
অ্যান্টনিওকে আমার কাছে পাঠিয়ে দাও। একটি কাজের জন্য তার মাথা আমার প্রয়োজন
(অ্যান্টনিওর প্রতি) দেখেছ, কি চমৎকার বাকচাতুরী। উনি তোমার মাথা ছাড়া কিছুই চাচ্ছেন না অর্থাৎ তোমার মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত তার ঘুম হবে না। এবং এই যে গোলাপ বিছানো আরেকটি চোরাগর্ত। লক্ষ্য কর, কি চতুরভাবে চিঠিটি লেখা
হয়েছে-
তোমার স্বামী নেপলসে কিছু ঋণ করেছে এবং আমি তার জামিন হয়েছি। সে জন্য সে যেন চিন্তিত না হয়। তার অর্থের চেয়ে তার হৃদয়টা পেতেই আমি বেশী আগ্রহী
-হ্যা, আমিও সে কথাই বিশ্বাস করি।
বসোলাঃ আপনি কি বিশ্বাস করেন?
ডাচেসঃ আমার স্বামীর ভালবাসা সম্বন্ধে তিনি বড়ই সন্দিহান। তাই তার হৃদয়টা না দেখা পর্যন্ত তিনি কিছুতেই বিশ্বাস করবেন না যে সে হৃদয়বান। শয়তান এত চতুর হয়নি যে ধাঁধাঁর মাধ্যমে আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের পথে বাধা দিতে পারবে।
বসোলাঃ আপনি কি তাহলে আমার আনা সদ্ভাব ও সম্প্রীতির মহৎ মৈত্রী চুক্তি প্রত্যাখান করবেন?
ডাচেসঃ তাঁরা বিচক্ষণ রাজাদের মতই ঐ মৈত্রীচুক্তির অছিলায় ভবিষ্যতে আমাদের ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য আপাতত নিজেদের শক্তি ও ক্ষমতা বৃদ্ধি করবেন। তাদেরকে আমার কথাগুলো জানিও।
বসোলাঃ অ্যান্টনিও, আপনার বক্তব্য কি?
অ্যান্টনিওঃ ডিউক মহোদয়কে বলে দিও যে আমি আসব না।
বসোলাঃ এই চিঠি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য কি?
অ্যান্টনিওঃ আমার ভ্রাতারা চারিদিকে ডালকুত্তা লেলিয়ে দিয়েছেন। যতক্ষণ না শুনব যে তাদের আটকানো হয়েছে ততক্ষণ পর্যন্ত অচিন্ত্যপূর্ব বিচক্ষণতার সাথে প্রণীত চুক্তিও নিরাপদ নয়। কারণ তার বাস্তবায়ন নির্ভর করবে আমাদের শত্রুপক্ষের অভিরুচির উপর। না, আমি তাদের কাছে যাব না।
বসোলাঃ আপনার কথা থেকেই আপনার বংশ পরিচয় পাওয়া গেল। চুম্বক দ্বারা যেমন লৌহখণ্ড আকৃষ্ট হয় তেমনই সামান্য জিনিসই সঙ্কীর্ণমনা ব্যক্তির অন্তরে ভয়ের সৃষ্টি করে। বিদায়, জনাব, শীঘ্রই আপনারা আমাদের নিকট থেকে বার্তা পাবেন।
[প্রস্থান]
ডাচেসঃ আমার সন্দেহ হচ্ছে যে অতর্কিতে আমাদের আক্রমণ করা হতে পারে। তাই আমার ভালবাসার দোহাই দিয়ে মিনতি করছি, তুমি তোমার বড় ছেলেকে নিয়ে মিলানের দিকে পালিয়ে যাও। আমাদের সকলেরই এই তলা ছিদ্র হয়ে যাওয়া জলযানে একত্রে অবস্থানের প্রয়োজন নেই; অন্যথায় আমাদের সামান্য যা কিছু আছে তা বিপন্ন হয়ে পড়বে।
অ্যান্টনিওঃ তোমার পরামর্শটি নিরাপদ। হে আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সম্পদ, তোমার থেকে বিদায় নিচ্ছি কারণ আমাদের অবশ্যই বিচ্ছিন্ন হতে হবে; এটাই ঈশ্বরের ইচ্ছা। কুশলী কারিগর হাতঘড়ি বা দেওয়ালঘড়ি অকেজো হয়ে যাওয়ার পর সেটাকে সারানোর জন্য যাবতীয় কলকজা খুলে ফেলে। আমাদের বিচ্ছেদের ব্যাপারটার সাথে কেবল এ ঘটনাই তুলনীয়।
ডাচেসঃ বুঝতে পারছি না এখন কি করা ভাল হবে, তোমার মরামুখ দেখা না তোমার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া? (সন্তানের প্রতি) হে পুত্র, বিদায়! আপন দুর্দশা উপলব্ধির মতো বিচার বুদ্ধি তোমার এখনো হয়নি। তাই তুমি সুখী মানুষ। আমাদের যাবতীয় প্রজ্ঞা ও পাঠলব্ধ জ্ঞান আমাদের দুঃখবোধকেই তীব্রতর করে। (অ্যান্টনিওর প্রতি) আশা করি চিরস্থায়ী গীর্জায় পৌছালে আমাদের আর এভাবে বিচ্ছিন্ন হতে হবে না।
অ্যান্টনিওঃ শান্ত হও! ধৈর্যশীলতাকে আত্মসংযমের ন্যায় মহান গুণে রূপান্তরিত কর। আমাদের সাথে কতখানি নির্দয় আচরণ করা হয়েছে সে সম্বন্ধে মাথা ঘামিও না। ক্যাসিয়াবৃক্ষকে যত খণ্ড বিখণ্ড করা যায় তা ততই সুঘ্রাণ ছড়ায়। একইভাবে মানুষ যতই আঘাত পায় তার সদগুণাবলী ততই বিকশিত হয়।
ডাচেসঃ তবে কি রুশ ক্রীতদাসদের মতো স্বৈরাচারী উৎপীড়ন সহ্য করেও তার প্রশংসা করতে হবে? হায় ঈশ্বর, তোমার নিষ্ঠুর হাত এই সব কিছুর অন্তরালে রয়েছে। প্রায়ই দেখি আমার ছোট ছেলেটি মাটিতে আছড়ে লাটিম ঘুরাচ্ছে । ঐ লাটিমের সাথে নিজেকে তুলনা করি। স্বর্গীয় দণ্ড ছাড়া অন্য কিছু আমাকে সঠিক পথে চালনা করতে পারবে
অ্যান্টনিওঃ কেঁদো না। শূন্যতা থেকে ঈশ্বর আমাদের সৃষ্টি করেছেন। আর আমরা শেষ পর্যন্ত শূন্যতায় বিলীন হয়ে যাওয়ার জন্যই সংগ্রাম করে চলেছি। বিদায়, ক্যারিওলা। একইন সাথে বিদায় নিচ্ছি তোমার কোল জুড়ে থাকা প্রিয় সন্তানদের নিকট থেকে। যদি তোমার সাথে আর দেখা না হয় তবে আদর্শ মাতার ভূমিকা রেখে শিশুসন্তানদের বাঘের মুখ থেকে আগলে রেখো। বিদায়।
ডাচেসঃ এক মৃত্যুপথযাত্রী পিতার মুখ থেকে এই বাণী নিঃসৃত হয়েছে। তাই আর একটি বার তোমার মুখখানি আমায় দেখতে দাও। পুণ্যাত্মা ঈশ্বরপ্রেমিক মৃত ব্যক্তির খুলিতে যে চুম্বন করেন তোমার চুম্বন তার চেয়েও সুশীতল।
অ্যান্টনিওঃ আমার হৃদয়টা এক ভারী সীসার খণ্ডে পরিণত হয়েছে। তার মাধ্যমে অনুভব করতে পারছি আমি কেমন বিপদের মধ্যে আছি। বিদায়।
(অ্যান্টনিওঃ তার সন্তানের প্রস্থান)।
ডাচেসঃ আমার জয়মাল্য পুরোপুরিই শুকিয়ে গিয়েছে।
ক্যারিওলাঃ ম্যাডাম, দেখুন একদল সশস্ত্র লোক আমাদের দিকেই এগিয়ে আসছে।
ডাচেসঃ তাদেরকে আন্তরিকভাবে স্বাগত জানাই। যখন রাজ-রাজড়াদের নিয়তি ভাগ্যচক্রের সাথে জড়িয়ে পড়ে তখন তার ভারে ঐ চাকা দ্রুত আবর্তিত হতে থাকে। আমি চাই আমার আকস্মিক পতন ঘটুক।
[মুখোশ পরিহিত অবস্থায় একজন প্রহরীসহ বসোলার পুনঃপ্রবেশ]
(বসোলার প্রতি) তুমি আমাকে খুঁজছ, তাই না?
বসোলাঃ হ্যা, আপনাকেই খুঁজছি। আপনি অবশ্যই আপনার স্বামীর সাথে আর দেখা করবেন না।
ডাচেস : তুমি কেমনতর শয়তান যে বজ্রের দেবতার মতো কর্তৃত্বের সুরে কথা বলছ?
বসলাঃ যা বললাম তা কি ভয়াবহ? দয়া করে বলুন তো কোন সুরটি বেশী খারাপ? যে সুরে ছোট পাখিরা ভয় পেয়ে শস্যক্ষেত্র থেকে পালিয়ে যায় না সেই সুর যা তাদের জালে প্রবেশের জন্য প্রলোভিত করে? আপনি দ্বিতীয় ধরনের সুরটি বড় বেশী শুনেছেন।
ডাচেসঃ হায়রে দুর্ভাগ্য! আমি কি কখনই মরিচাধরা, মাত্রাতিরিক্ত বারুদ ঠাসা কামানের মতো বিস্ফোরিত হয়ে টুকরো টুকরো হয়ে যাব না। এসো, কোন বন্দীশালায় যেতে হবে?
বসোলাঃ না, কোন বন্দীশালায় যেতে হবে না ।
ডাচেসঃ তাহলে কোথায়?
বসোলাঃ আপনার প্রাসাদে।
ডাচেসঃ শুনেছি ক্যারন তার নৌকায় করে সবাইকে অন্ধকার হ্রদ পার করে দেন, কিন্তু সেখান থেকে কাউকে ফিরিয়ে আনেন না।
বসোলাঃ আপনার ভাইরা আপনার জন্য করুণা অনুভব করেন এবং তারা চান আপনি নিরাপদে থাকুন।
ডাচেসঃ করুণা! ফেজান্ট ও তিতিরপাখীরা যতদিন না মোটা তাজা হয়ে খাওয়ার উপযোগী হয়, ততদিন ওদের মতই করুণা করে মানুষ ঐ পাখীগুলোকে বাঁচিয়ে রাখে।।
বসোলাঃ এরা কি আপনার সন্তান?
ডাচেসঃ হ্যা।
বসোলাঃ ওরা কি কথা বলতে পারে?
ডাচেসঃ না, কিন্তু যেহেতু তারা অভিশাপ মাথায় নিয়েই জন্মেছে আমি চাই প্রথমেই তারা অভিশাপ দিতে শিখুক।
বসালাঃ ছিঃ ম্যাডাম, ছিঃ! আপনি বরং সেই নীচ বংশজাত লোকটাকে ভুলে যান।
ডাচেসঃ আমি যদি পুরুষ মানুষ হতাম তাহলে তোমার ঐ নকল মুখের উপর দিয়েই আসল মুখে আঘাত করতাম।
বসোলাঃ ঐ লোকটার জন্মের ঠিক নেই।
ডাচেসঃ তুমি ঠিকই বলেছ। তার জন্ম নীচু ঘরে। তবে মানুষ চরম সুখী হয় তখনই যখন কর্মের মাধ্যমে সে স্বীয় সদগুণের প্রমাণ দিতে পারে।
বসোলাঃ ঐ ধরনের সদগুণ নিরর্থক ও নিষ্ফল ।
ডাচেসঃ তোমায় অনুরোধ করি বলতে কোন ব্যক্তি শ্রেষ্ঠতম। বলতে পারবে কি? আমার এই দুঃখ দুর্বিপাকের সাথে দুঃখের কাহিনীই সামঞ্জস্যপূর্ণ। আমি তোমাকে ঐ ধরনের একটি কাহিনী শোনাবঃ
একটা স্যামন সাগরে সাঁতরাতে সাঁতরাতে একটা ডগফিশের সাক্ষাৎ পেল। ডগফিশ রূঢ় ভাষায় তাকে বলল, আমাদের মতো গভীর পানির মাছদের সাথে মিশবার সাহস তুমি পাও কি করে? তুমি তেমন কোন উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব নও। তুমি এমন এক ব্যক্তি যে বছরের দুর্যোগহীন এবং আনন্দময় সময়টিতে ছোট নদীতে বাস কর। তোমার অবস্থান বাগদা চিংড়ি ও স্মেল্ট জাতীয় গুঁড়া মাছের সমস্তরে। কিভাবে তুমি আমাদের ডগফিশকুলকে শ্রদ্ধা নিবেদন না করে চলে যাওয়ার সাহস পেয়েছ? স্যামন বলল হে ভগ্নী, শান্ত হও। তুমি বা আমি যে জেলেদের জালে আটকা পড়িনি সেজন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দাও। জেলেদের ঝুড়িতে করে জনসমক্ষে প্রদর্শিত না হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত আমাদের সত্যিকার মূল্য জানা যাবে না। তখন সম্ভবত আমার বাজারদরই বেশী হবে। এমন কি যখন আমি রাঁধুনির নিকট অথবা আগুনের কাছে থাকব তখনও আমার কদরই বেশী হবে।
এই গল্প থেকে প্রতাপশালী লোকদের জন্য নীতিবাক্য আহরণ করা যায় যে মানুষ যখন সর্বাপেক্ষা দুর্দশাগ্রস্ত অবস্থায় থাকে তখন প্রায়ই তাকে উচ্চ মূল্যায়ন করা হয়। কিন্তু ও কথা থাক। এসো, তোমার যেখানে খুশী আমাকে নিয়ে যাও। দুঃখের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আমি বর্ম আচ্ছাদিত অবস্থায় রয়েছি। স্বৈরশাসকের মতিগতি যেদিকেই ধাবমান হোক না কেন আমি তার সম্মুখীন হতে প্রস্তুত আছি। গভীর উপত্যকা কেবল কোন বড় পাহাড়ের নিকটেই অবস্থিত হয়।
Next Part - The Duchess of Malfi - John Webster - Bangla Translation - Act - 4 - Scene - 1 টিকাসমূহঃ
তৃতীয় অঙ্ক ও পঞ্চম দৃশ্য।
১. গ্রীক পুরাণে উল্লেখ আছে যে মৃত্যুর পর আমাদের আত্মাগুলো হেডিস অর্থাৎ পাতালপুরীতে বহন করে নিয়ে যাওয়া হয়। হেডিস কয়েকটি নদী দ্বারা পরিবেষ্টিত। স্টিক্সস তাদের অন্যতম। ক্যারন নামক একজন কাণ্ডারী নৌকায় করে আত্মাগুলো স্টিঙ্কস নদী পার করে দেন। ওয়েবস্টার অবশ্য স্টিঙ্কসকে হ্রদ হিসাবে উল্লেখ করেছেন।
২. বসোলার মুখোশ।

৩. অর্থাৎ শান্তির নীড় বিপদসংকুল এলাকার কাছাকাছি অবস্থিত হয়।

No comments:

Post a Comment

Trending

Ads