Total Pageviews

Wednesday, August 15, 2018

Ode on melancholy - John Keats - Bangla translation





Ode on melancholy - John Keats - Bangla translation

না, না! লীথী নদীতে যাওয়ার দরকার নেই, অথবা মোচড়ান দরকার নেই
বিষাক্ত ঔল্ফ গাছের শক্ত মূল, ইহার বিষাক্ত রসের জন্যে ;
ফ্যাকাসে কপালে চুমু না দেয়ার অনুতাপে দূঃখ খুজতে হবে না। 
বিষাক্ত গাহ নাইট শেড বা বিষাক্ত আংগুর খেতে হবে না ;
কবরস্থান এর গাছ দিয়ে জপ মালা বানিয়ে পড়তে হবে না। 
গুবড়ে পোকা বা মৃত্যু পোকার মত বিশ্রি জিনিস থেকে দূঃ খুজতে হবে না।
তোমার বিমর্ষ মন বিশ্রী পাখাওয়ালা পেচার কাছে দূঃখ খুজতে হবে না
যে তোমার রহস্যময় সুখ দূঃখের অংশিদার হবে।
ছায়ার পর ছায়া আসবে খুব তন্দ্রা নিয়ে,
এবং তোমার আত্মায় প্রচন্ড দূঃখ নিয়ে আসবে।
কিন্তু যখন দুঃখ উপযুক্তভাবে এসে পরবে
হঠাৎরে আকাশ থেকে বর্ষান মেঘের মত,
যেটা লালন পালন করবে নেতিয়ে পরা সব ফুলকে,
এবং সবুজে ঢেকে দেবে পার্বত্য উপত্যকা;
তারপর তোমার দুঃখকে গিলবে সুন্দর সকাল।
সমুদ্রের লবণাক্ত তীরে দাঁড়িয়ে দেখা রঙ ধনুতে দুঃখ খুজে পাবে,


তার কোমল হাত অথবা বকবক
এবং পান করবে বেশী বেশী তার দৃষ্টিহীন চোখ।
সে বসে আছে সৌন্দর্যের সাথে - সৌন্দর্য যা অবশ্যই মরবে;
আর আনন্দ যার হাত থাকে ঠোটের উপর
বিদায় জানাতে আসে প্রবল আনন্দকে,
মৌমাছি মধু টেনে নেয়ার পর ফুলে বিষ পড়ে থাকে
যে মন্দিরে পূজা দেয় আনন্দ
সে মন্দিরে পূজা দেয় বেদনা
কেউ তাকে রক্ষা করতে পারবে না যার জিহবা শক্তিশালী
তার আঙ্গুলের রুচি  নষ্ট হয়ে গেলে;
তার আত্মা স্বাদ গ্রহন করবে দুঃখের
যেন তার সামনে খেলার পুরষ্কার ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে । 

কবিতাটির সারসংক্ষেপ লিঙ্কঃ

No comments:

Post a Comment

Blog Archive