Total Pageviews

Thursday, April 23, 2020

Crime and Punishment - Fyodor Mikhailovich Dostoevsky – Characters Analysis - Bangla

Crime and Punishment - Fyodor Mikhailovich Dostoevsky – Characters Analysis - Bangla

Crime and Punishment - Fyodor Mikhailovich Dostoevsky – Characters Analysis - Bangla
চরিত্র পরিচিতিঃ
১। Rodion Romanovich Raskolnikov  (“Rodya,”  “Rodka”) উপন্যাসের নায়ক রাসকোলনিকভ একজন সাবেক ছাত্র। অর্থাভাবে পড়াশুনা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। সে সেইন্ট পিটার্সবার্গের একটি ফ্লাটবাড়ির ভাঙাচোরা চিলেকোঠায় বাস করে। সম্পূর্ণ উপন্যাসটি তাঁর মানসিক দ্বন্দ নিয়ে আবর্তিত হয়। প্রথমে সে বন্ধকদাতা মহিলা ইহানোভনাকে হত্যা করে, তারপর কিভাবে প্রায়শ্চিত্যের মাধ্যমে ভালো পথে আসা যায় এই বিষয়ক মানসিক দ্বন্দের মাঝে ছিল। হত্যার পর থেকেই পুরো উপন্যাস জুরে রাসকোলনিকভ মানসিক যাতনার প্রভাবে শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিল।
২। Sofya  Semyonovna  Marmeladov  (“Sonya,”  “Sonechka”) রাসকোলনিকভ তার কাছেই প্রথম তাঁর হত্যার ঘটনাটি খুলে বলে। সে তাকে প্রায়শ্চিত্য করার পরামর্শ দেয়। রাসকোলনিকভ তাকে ভালোবেসে ফেলে। সোনিয়া ছিল দরিদ্র মার্মেলাডভের মেয়ে। সে তাকে সংসার চালানোর জন্যে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে। সে ছিল খুবই লাজুক এবং এবং তার ধর্মবিশ্বাস ছিল খুবই কড়া। সেই একমাত্র ব্যক্তি/মেয়ে যার সাথে রাসকোলনিকভ সম্পর্ক করেছিল।
৩। Avdotya Romanovna Raskolnikov (“Dunya,” “Dunechka”) রাজ করলি কভের বোন দুনিয়া ছিল যেমন বুদ্ধিমতী গর্বিত এবং দেখতেও সুন্দরী সেও ছিল অত্যন্ত নীতি-নৈতিকতা সম্পন্ন এবং মানুষের প্রতি দয়াশীল এছাড়া সে ছিল দৃঢ় সংকল্প এবং সাহসী যখন তার পরিবারকে নিয়ে কটাক্ষ করে সে তখন তার সাথে তার এংগেজমেন্ট ভেঙে দেয় এবং ভিদ্রিগাইলভ (Svidrigailov) গুলি করতে উদ্যত হয়।
৪। Arkady Ivanovich Svidrigailov: ভিদ্রিগাইলভ ছিল Dunya একজন চাকরিদাতা। সে ছিল অত্যন্ত দুশ্চরিত্র। উপন্যাসের মাঝে তার কথা শোনা গেলেও  উপন্যাসের একেবারে শেষে এসে উপস্থিত হয় সেখানে দেখা যায় সে দুনিয়াকে ভোগ করতে চায়। দুনিয়া তাকে গুলি করতে উদ্যত হলে সে প্রথমে ভয় পেয়ে যায় পরে দুনিয়া মানুষ হত্যা মহাপাপ এজন্য থেমে যায়। তখন তার মাঝেও মনুষত্ব কাজ করে। সে তার রুবল গুলো তাঁর বাগদত্তা কে দান করে আত্মহত্যা করে।
৫। Dmitri Prokofych Razumikhin: রাজুমিখিন ছিল রাসকোলনিকভ এর বন্ধু। সে খুবই হতদরিদ্র প্রাক্তন ছাত্র। দারিদ্রতার কারণে তাকে অনেক অনেক পরিশ্রম করতে হয়। রাসকোলনিকভ এর অসুস্থতার সময় রাজুমিখিন সবসময়ই তার সাথে ছিল এমনকি পুলচেড়িয়া আলেক্সান্দ্রভনা এবং দুনিয়াকে পরামর্শ সুরক্ষার জন্য সে কাজ করেছিল
৬। Katerina  Ivanovna  Marmeladov: সোনিয়ার সৎ মা এবং মার্মেলাডভ এর স্ত্রী। তাঁর ক্ষয় রোগ ছিল এবং কাশির সাথে রক্ত বের হত। সে সব সময় তা উচ্চবংশ নিয়ে গর্ব করে কথা বলত।  
৭। Porfiry Petrovich: অ্যালিওনা আইভানোভনা এবং লিজাভেটার খুনের তদন্তের জন্যে যে ম্যাজিস্ট্রেটকে দায়িত্ব দেয়া হয়। সে অত্যন্ত চালাক অপরাধীদের মনস্তত্ব বিষয়ে ভালো জ্ঞান রাখতেন। সেও রাসকোলনিকভকে সন্দেহ করে। তবে উপন্যাসে তাকে খুব একটা দেখা যায়নি।  
৮। Semyon Zakharovich Marmeladov: একজন মাদকাসক্ত ব্যাক্তি যার সাথে হোটেলে রাসকোলনিকভের দেখা হয়। সে খুব ভালো করেই জানত যে, তাঁর মদ পান তাঁর নিজের তাঁর পরিবারের ধ্বংসের কারন। কিন্তু এরপরও সে তা পান করে যেত।
৯। Pulcheria Alexandrovna Raskolnikov: রাসকোলনিকভ এর মা। ছেলের প্রতি তিনি ছিলেন খুবই অনুরাগী। ছেলের সুখের জন্যে বা সফলতার জন্যে নিজের নিজের মেয়ের সুখকেও বিসর্জন দিতে প্রস্তুত ছিলেন। এমনকি রাসকোলনিকভ যখন তাঁর কাছে সব স্বীকার করে তারপরেও তিনি চাননি, তাঁর ছেলে আঈনের কাছে খুনি হিসেবে আত্ম সম্ররপন করুক।
১০। Pyotr  Petrovich  Luzhin: লুজিন ছিল দুনইয়ার বাগদত্তা। স্বাভাবের দিক থেকে সে ছিল অত্যন্ত নীচ, সংকীর্ণমনা এবং আত্মকেন্দ্রিক। তাঁর মনের আকাঙ্ক্ষা ছিল সে একজন গরীব, বুদ্ধিমতি সুন্দরী মেয়ে বিয়ে করবে। যাতে তাকে সে ঋণের জালে আটকে রাখতে পারে।
১১। Andrei  Semyonovich  Lebezyatnikov: সে ছিল লুজিনের রুমমেট। সে নাস্তিকতাবাদে বিশ্বাসী ছিল। স্বাভবের দিক থেকে ছিল আত্মকেন্দ্রিক, বিশৃঙ্খল, বিভ্রান্ত অপরিপক্ব।
১২। Alyona Ivanovna: একজন বৃদ্ধ বন্ধকদাতা, যাকে রাসকোলনিকভ হত্যা করেছিল। রাসকোলনিকভ  তাকে উকুন হিসেবে ডাকত এবং গরিবের সাথে প্রতারণার জন্যে তাকে ঘৃণা করত।
১৩। Lizaveta  Ivanovna: অ্যালিওনা আইভানোভনার বোন। সে ছিল বোকা স্বভাবের। মূলত তাঁর বোন তাকে চাকরানীর মতই কাজ করাতো।  
১৪। Zossimov: রাজুমিখিন এর বন্ধু এবং রাসকোলনিকভ এর চিকিৎসক। রোগীদের প্রতি তাঁর কিছুটা অন্তর্দৃষ্টিও কাজ করত। সে সন্দেহ করেছিল রাসকোলনিকভ মানসিকভাবে অসুস্থ।
১৫। Nastasya  Petrovna  (“Nastenka,”  “Nastasyushka”) রাসকোলনিকভ যে বাড়িতে ভাড়া থাকতো, সেই বাড়িরই একজন চাকরানি। রাসকোলনিকভ এর প্রতি সে ছিল খুবই দয়াশীল। সে অসুস্থ হয়ে যাওয়ার পর নাসতাশিয়া তাঁর জন্যে নিয়মিত খাবার নিয়ে আসত সেবা যত্ন করত  
১৬। Ilya  Petrovich  (“Gunpowder”): সে পুলিস অফিসার, অ্যালিওনা আইভানোভনা তাঁর বোনকে হত্যার পর থানায় গেলে, যার সাথে রাসকোলনিকভের ঝগড়া লাগে। পরফির্য পেত্রোভিচ এর মত সেও রাসকোলনিকভকে কিছুটা সন্দেহ করেছিল। হুট হাট করে রেগে যেত বলে তাঁর ডাকনাম ছিল গান পাউডার।
১৭। Alexander Grigorievich Zamyotov একজন পুলিস অফিসার যে কিনা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত রাস্কোলনিকভকে অ্যালিওনা আইভানোভনা এবং লিজাভেটার খুনি হিসেবে সন্দেহ করে।
১৮। Nikolai Dementiev (“Mikolka”) অ্যালিওনা আইভানোভনা যে বিল্ডিং থাকতেন, সেই বিল্ডিং এর দুই তলাতে সে রঙ এর কাজ করে তাকে খুন করার মিথ্যা অভিযোগে ফেসে যায়। পরে নিজে থেকে মিথ্যা খুনের স্বীকৃতি দেয়।  
১৯। Polina Mikhailovna Marmeladov (“Polya,” “Polenka,” “Polechka”) ক্যাটরিনা আইভানোভনা এর আগের সংসারের বড় মেয়ে।

No comments:

Post a Comment

Blog Archive