Total Pageviews

Sunday, February 16, 2020

Andrea Del Sarto - Robert Browning - Bengali Translation part 2 of 2

Andrea Del Sarto - Robert Browning - Bengali Translation part 2 of 2
Previous Part  - Andrea Del Sarto

Andrea Del Sarto - Robert Browning - Bengali Translation part 2 of 2


বেঁচে থাকতাম যশের মাঝে এগনোলোর পাশাপাশি 
[Agnolo – ইটালিয়ান চিত্রকর]
স্বর্গে রাফায়েল অপেক্ষা করছে, ঈশ্বরের কাছাকাছি, তিনজনই থাকতাম সেথায়।
আমি অন্তত তোমার জন্যে হলেও একাজটি করতাম, এখন
মনে হয় হবে না, সবকিছু ঈশ্বরের ইচ্ছাধীন।
প্রেরণা আসে আত্মা হতে।
অন্য কিছু থেকে নয়, তোমাকে আমার প্রয়োজন কি?
রাফায়েল এবং এগনোলো কি স্ত্রী ছিল?
[Agnolo Raphael কারোই স্ত্রী ছিল না ]
এধরায় হায় যার আছে ক্ষমতা কিছু করার, তার নেই ইচ্ছা
আর যার আছে ইচ্ছা তার নেই ক্ষমতা, এই আমি বুঝি
যদি ইচ্ছা থাকে কিছুটা তার ক্ষমতা থাকে না।
আর এভাবেই আমরা অর্ধেক শক্তি নিয়ে জীবন পথে সংগ্রাম।
করে যাই, অবশেষে।
পুরস্কার যদি এখানে না পাই ঈশ্বর ক্ষতিপূরণ করবেন পরকালে।
পৃথিবীতে পুরস্কার না পাওয়া আমার তরে নিরাপদ
হেথায় আমি অবমূল্যায়িত
সত্যি বলতে কি, আমি গরিব ছিলাম দীর্ঘকাল।
তুমি তো জান, আমি সারা দিনে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সাহস পেতাম না।
সে ভয়ে যদি না রাস্তায় দেখা হয়ে যায় প্যারিসের [Paris] মহান ব্যক্তিদের সাথে।
সবচেয়ে ভাল হয় যবে তারা যায়, চলে অন্য দিকে তাকিয়ে।
তবে তারা মাঝে মাঝে করে সমালোচনা; আমি এসব সমালোচনার যোগ্য।
হ্যা, তারা সমালোচনা করতেই পারে, কারণ, রাজা ফ্রান্সিস [Francis] অর্থ দিল মোরে
[ফ্রান্সের রাজা প্রথম ফ্রান্সিস প্রাসাদ গড়ে তুললেন ফনটেইনব্লউ শহরে। দেয়াল চিত্র একে এসব সজ্জিত করার জন্যে রাজা অর্থ দিলেন আন্দ্রে ডেল সার্টোকে। ]
মনে পড়ে সেই সুখের বছরগুলোর কথা যখন ছিলাম ফনটেইনব্ল [Fontainebleau] শহরে।
তখন অবশ্যই আমি ধরিত্রীর বস্তুগত লোভের উর্ধ্বে আত্মিক প্রেরণায় সমৃদ্ধ ছিলাম
ধারণ করেছিলাম তখন আমি রাফায়েলের গৌরব মুকুট।
তখন দয়ার্দ্র দৃষ্টিতে তাকাতেন মহান সম্রাট আমার দিকে যখন আঁকতাম ছবি
নিজ দাড়িতে রাখতেন আঙুল নতুবা পাকাতেন গোঁফ।
তার সুন্দর হাসি ছড়ানো মুখের উপরে,
আমার কাঁধে রাখতেন হাত
কানে বাজতো তার সোনার হারের রুনুঝুনু
গায়ে লাগতো তার নিঃশ্বাস, যখন আঁকতাম দেয়াল গর্বের সাথে।
রাজ সভাষদ থাকতো চারপাশে তার, দেখতে যেমন
রাজা দেখেন, প্রশংসার দৃষ্টিতে মোর কাজ
ফ্রান্সবাসীর বন্ধুসুলভ দৃষ্টি উৎসাহের আগুন।
পর্যাপ্তভাবে ঢেলে দেয় তাদের হৃদয় থেকে,
আর এর বাইরে সবচেয়ে ভাল পুরস্কার লুক্রিজিয়ার মুখ
আর এটাই হচ্ছে আমার কর্মের ভিত্তিমূল।
আমার কাজে পুরস্কারের মুকুট পরাবে সে-!
তখন ছিল সুসময়, ছিল মোর রাজকীয় দিন
লুক্রিজিয়া, যদি তুমি অধৈর্য না হতে, আমি জানি
যা হবার তা হয়ে গেছে, উহা ছিল উপযুক্ত সময়, বিকাশের তরে,
বলছে আমার সত্তা
ফ্রান্সের সে জীবন ছিল চমৎকার সোনালি, নয় ধূসর
এখন আমার চোখ বাদুরের চোখের মতো দুর্বল, সূর্যালোক করে না প্রলুব্ধ
খামার বাড়ির চার দেয়ালে ঘেরা আমার পৃথিবী
কি উপায়ে অবস্থার পরিসমাপ্তি ঘটবে?
তুমি মোরে ডেকেছিলে, আর আমি ফিরে আসলাম বাড়িতে, তোমার হৃদয়ের টানে।।
উদ্বেল আকাঙ্ক্ষা ছিল ফ্রান্সে পৌছার এবং থাকার তারপর যদি
পৌছাতে পারি গৌরবের শিখরে, পারিনি, তাহলে হারালাম কি?
আমার হাতকে দাও তোমার মুখের দু'পাশে চুলগুলোকে সুবিন্যস্ত করে
গড়তে ছবির কাঠামো।
আমার লুক্রিজিয়া, তুমি অপরূপা।
রাফায়েল ইহা এঁকেছে, আন্দ্রে এঁকেছে উহা
[আন্দ্রে ম্যাডোনার দু'টি ছবি নির্দেশ করে একথা বলেছিলেন।]
রোমবাসীর [Raphael] আঁকা ছবিটা উন্নততর, প্রার্থনার সাজে ছবিটা ভাল
কিন্তু অপর ছবিটি অধিকতর মানবীয়, কারণ তার মডেল হচ্ছে নিজের স্ত্রী,
মানুষ আমাকে এরূপই বলে, আমি দুটো ছবিই তোমার
উপস্থিতিতে বিচার করতে চাই
আমার সৌভাগ্য যে, রাফায়েলের ছবির তুলনা করা হয় আমার ছবির সাথে
লুক্রিজিয়া তুমি কি জান, এ্যাগনোলো নিজে একবার
রাফায়েল সম্পর্কে নিচু মন্তব্য করেছিল,
এসবই আমি জানতাম এতো বছর ধরে।
যখন সে নবীন তার চিন্তার প্রতিফলন ঘটাতে তার ছবিতে,
রোমের প্রাসাদ দেয়ালে।
কমই নাচতো হৃদয়, আনন্দ আর গর্বে
বন্ধু আন্দ্রে, তুমি হলে এক করুণ গো-বেচারা
আসা যাওয়া কর আমাদের ফ্লোরেন্স [Florence] শহরে, কেউ জিজ্ঞাসে না।
কে আসে কে যায়, কি কাজ করে সম্পাদন।
যদি তুমি পেতে উৎসাহ যাজক আর রাজার কাছ থেকে
তোমার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ঘাম ছুটে যেতো রাফায়েলের
রাফায়েলের ছবিতে বাহু আঁকতে হয়েছে ভুল।
আমি কমই সাহস করি, দেখ শুধু দেখিয়ে দিচ্ছি।
চকটা দাও এদিকে, টানটা এভাবে দেয়া উচিত।
কিন্তু আত্মা! সেটা শুধু রাফায়েলই আঁকতে পারে।
আজও আমি সবকিছু যত্নের সাথে দেখি, যদি সে সত্য বলে,
(সে কি? মাইকেল এ্যানজেলো ছাড়া [Michel Agnolo]?
তুমি কি ইতোমধ্যেই সব কথা ভুলে গেছ?)
সত্যিকারে সুযোগ ছিল বড় শিল্পী হওয়ার, হারিয়েছি সে সুযোগ
যদি তুমি সন্তুষ্ট থাক লুক্রিজিয়া, তবে আমি আরো বেশি সন্তুষ্ট।
আমাকে ভাবতে দাও। তুমি নিবিড় হাসি হাস
এসময়টা আসলেই স্মরণ রাখার মতো! আবার হাসি
যদি তুমি আমার পাশে এমনিভাবে থাক প্রতি রাতে
আমি আরো ভাল ছবি আঁকতে পারবো, তুমি কি বুঝতে পারো?
আমি বলতি চাই যে, তাহলে আমি আরো বেশি
উপার্জন করতে পারবো, দিতে পারবো তোমায় বেশি।
চেয়ে দেখ দূরে, সন্ধ্যা নামিছে ধীরে, দেখ আকাশ পারে একটি তারা।
Morello পর্বত আঁধারে গেছে ডুবে, বাতির আলোতে যাচ্ছে দেখা মঠের দেয়াল।
কুই পেঁচারা [cue-owls] ডাকে ক্যুই বলে যে নামে তাদের আমরা ডাকি।
জানালার পাশ থেকে সরে আস প্রেয়সী, চলে আস ব্যথাভরা ছোট্ট ঘরে।
যে ঘরটা তৈরি করেছিলাম আমাদের সুখের তরে, আল্লাহই ন্যায় বিচারক।
রাজা ফ্রান্সিস হয়তো ক্ষমা করবেন মোরে, মাঝে মাঝে রাতের বেলায়।
ক্লান্ত চোখ যখন সরিয়ে আমি ছবির উপর থেকে
দেয়াল দেখি আলোকিত, ইটের পরে ইট
স্পষ্ট দেখি, মসলার বদলে আস্তর করা স্বর্ণ দিয়ে
তার স্বর্ণের আস্তরের উপর আমি দিই আস্তর।
চলো আমরা পরস্পরে ভালবাসি। ভেতরে যাবে?
তোমার সেই মামাতো ভাই কি আবার এসেছে সেখানে?
সে কি বাইরে অপেক্ষা করছে?
অবশ্যই তুমি দেখা করবে, আমাকে সাথে নিয়ে নয়একাকী!
জুয়া খেলার আরো টাকা ধার দিবে? তোমার হাসিতে তাই বোঝায়।
ঠিক আছে তোমার হাসি আমায় কিনতে দাও, তুমি কি আরো টাকা চাও??
যতদিন আমার হাত আছে, চোখ আছে, আছে হৃদয়ের টান।
ততদিন আমায় কাজ করতে দাও যাতে তোমার হাসির যোগ্য মূল্য দিতে পারি।
আমার ভালাসার তরে অর্থ ঢেলে যাবো, কেবল একটু তোমার পাশে বসতে দাও।
সন্ধ্যার আঁধার ঘনিয়ে আসছে বাইরে।
তুমি আবেদনকে তুচ্ছ বলে আখ্যা দিলে, ভেবে দেখ ভালভাবে।
কেমন ছবি আঁকতে পারতাম, যদি আমি ফ্রান্সে ফিরে যেতাম
একটা ছবি, কেবল আর একটা সেই কুমারীর মুখ [Madonna]
এবার আর তোমাকে মডেল ধরে নয়! আমি শুধু চাই তুমি থাকবে মোর পাশে বসে
শুনবে তখন Michel Agnolo আমার কাজের করেন প্রশংসা
মূল্যায়ন হবে আমার সকল ছবির, বলব তোমায় আমার যোগ্যতার কথা,
থাকবে তুমি আজকে পাশে? কালকে তোমার বন্ধুকে করো তুষ্ট।
তার গ্যালারির তরে ছবিটা তাহলে আঁকি
সহজে ছবিটা এঁকে শেষ করি এভাবে, এভাবে।
এটা তাকে দিয়ে, আঁকবো অন্য একটি বা দুটি
যদি সে সন্তুষ্ট না হয়। আর দিতে করে দ্বিধা পুরো টাকাটা
যা দিবে তোমার সেই মামাতো ভাইকে, খেলতে জুয়া।
যা ভাল হয় আমি সব সময় তাই মেনে চলি।
তের স্কুডি [thirteen scudi] রাখা জমা রাখার তরে।
ভালবাসা যা তোমাকে আনন্দ দেয়, কিন্তু আহা তার কি হবে,
তোমার মামাতো ভায়ের! তোমাকে সন্তুষ্ট করার জন্যে সে আর কি করবে?
আজ রাত আমি শান্ত হয়ে কাটাবো বৃদ্ধ বয়সের মতো।
আমি আমার অতীত নিয়ে কমই করি আক্ষেপ, কমই করেছি পরিবর্তন
কেন করব অতীতকে পরিবর্তন?
রাজা ফ্রান্সিস-এর তরে করেছি অন্যায়! একথা সত্যি
আমি তার থেকে নিয়েছি অর্থ, হয়েছি প্রলুব্ধ
আর গড়েছি বাড়ি, করেছি পাপ আর এসবই গত।
আমার বাবা, আমার মা মারা গিয়েছেন অভাবে।
ধন সম্পদ কি আমার ছিল? তুমি তো দেখেছ
কীভাবে মানুষ ধনী হয়! প্রত্যেকেই যার যার ভাগ্য নিয়ে আসে।
তারা জন্মেছে গরিব, জীবন কাটিয়েছে গরিব অবস্থায় মারা গেছে গরিব অবস্থায়।
আর আমার জীবনে আমি দিয়েছি শ্রম।
মজুরি পাইনি ভাল। ভাল সন্তানেরা (আমি ভাল নই)
আঁকুক দেখি আমার মতো দু ছবিচেষ্টা করুক না!
কোন সন্দেহ নেই, সমতা রয়েছে। হ্যা
তুমি আমায় যথেষ্ট ভালবেসেছ, অন্তত আজ রাতে মনে হয়।
এটা আমার জন্যে অবশ্যই যথেষ্ট, এর বেশি আর কি চাই?
স্বর্গে হয়তো নতুন সুযোগ পাবো, অন্তত আর একবার সুযোগ পাবো
নতুন জেরুজালেমের [Jerusalem] চারটি দেয়াল
ফেরেস্তাদের কাঠি দিয়ে প্রতিপার্শ্ব পরিমাপ করা,
লিওনার্দো [Leonard], রাফায়েল এ্যাগনোলা আর আমার দ্বারা
[ছবি এঁকে] ঢাকতে দেয়াল কিন্তু বাকি তিনজনের নেই কোন স্ত্রী
যেহেতু আমার রয়েছে। সুতরাং - তারা সেখানেও আমাকে অতিক্রম করবে।
কারণ সেখানেও লুক্রিজিয়া থাকবেযেহেতু আমি তাকে বেছে নিয়েছি।
আবার মামাতো ভাইয়ের শব্দ! যাও, আমার প্রিয়া।

No comments:

Post a Comment

Blog Archive