Thursday, September 6, 2018

Desire Under the Elms by Eugene O'Neill - Bangla Summary and Characters - ডেইজার আন্ডার দ্যা এমস - বাংলা সারমর্ম ও চরিত্রসমূহ - ২পর্বের ১ম পর্ব


Desire Under the Elms by Eugene O'Neill

Desire Under the Elms by Eugene O'Neill - Bangla Summary and Characters -  ডেইজার আন্ডার দ্যা এমস - বাংলা সারমর্ম ও চরিত্রসমূহ - ২পর্বের ১ম পর্ব  
এক নজরে চরিত্র সমূহঃ
১। এফরাইম ক্যাবটঃ বয়স ৭৫, পিটার ও সিমনের বাবা এবং ইবেনের সৎ বাবা।
২। অ্যাবি পুটনামঃ বয়স ৩৫ ও ক্যাবটের ৩য় স্ত্রী।
৩। ইবেনঃ এফরাইম ক্যাবটের ২য় স্ত্রীর সন্তান।
৪। সিমন ও পিটার ক্যাবটঃ এফরাইম ক্যাবটের ১ম স্ত্রীর সন্তান
৫। মিনিঃ একজন পতিতা। 
৬। শেরিফ
৭। নাচের অনুষ্ঠানে উপস্থিত বাদক, নাচিয়ে ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ ।
মাস্টার্স ফাইনালের সিলেবাসের অন্যান্য লেখা ও অনুবাদ

আলোচনাঃ 
নাটকটির ঘটনা প্রবাহ শুরু হয়েছিল নিউ ইংল্যান্ড এর একটি পারিবারিক খামারবাড়িতে। বাড়িটির দুই পাশেই বিশাল দুটো এলমস গাছ দাঁড়িয়ে আছে যেন তারা বাড়িটিকে পাহাড়া দিচ্ছে। গাছ দুটোর ডালপালা ও পাতা গুলো চারিদিকে এমনভাবে ছড়িয়ে আছে, এগুলোর দিকে তাকালে মনে হবে যেন কোন রমনী হয়তো চুল এলিয়ে দুপুরে বিশ্রাম করছেন। 
প্রথম অঙ্কঃ
সিমন আর পিটার এফরাইম ক্যাবট এর দুই সন্তান। সিমনের বয়স উনচল্লিশ আর পিটার এর বয়স সাইত্রিশ। তারা দুই ভাই ক্যালিফোর্নিয়ায় গিয়ে স্বর্ন উদ্ধারের দিবা স্বপ্নে বিভোর। তাদের সারাদিনের কথা, কাজ ও চিন্তায় এই বিষয়টি বারবার প্রকাশ পাচ্ছিল। এ সময় একদিন তাদের বাবা এফরাইম ক্যাবট ঘোড়ার গাড়ি হাকিয়ে বাড়ি থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্যে বারিয়ে গেলেন আর বলে গেলেন সে ফিরে আসা না পর্যন্ত যেনো তারা তাদের খামারে নিয়মিত যাতে কাজ করে যায়। তার বেরিয়ে পরার হেতু জিজ্ঞাসা করা হলে সে রহস্য করে উত্তর দেয় এখন বসন্তকাল তাই সে এই ঋতুতে তার প্রতি ইশ্বরের কি বানী তা উদ্ধার করার জন্যে বেরিয়েছে। এই দুই ভাই মনে মনে তাদের বাবার মৃত্যু কামনা করত যাতে করে তাদের প্রাপ্য অংশ তারা খুব তারাতারি পেয়ে যায়। এই খামারে তাদের এতো বেশী পরিশ্রম করতে হচ্ছে বলে তারা তাদের বাবাকে ঘৃণা করত। তাদের সাথে থাকত তাদের আর একজন সৎ ভাই ইবেন। সে ও তাদের বাবাকে ঘৃণা করত। কারন সে মনে করত তার এই সৎ বাবাই তার মাকে অত্যধিক খাটিয়ে হত্যা করেছে। ইবেন আরো ভাবত যে তার মা এখন কবরে শান্তি পাচ্ছে না এবং সে তার বাবাকে শাস্তি দিতে চায়। তাই তার আত্মা এই বাড়িতেই ঘুরে বেড়ায় এবং মাঝে মাঝেই ইবেনকে তার কাজে সাহায্য করে। ইবেন সব সময়ই এটা দাবী করে যে সেই এই বাড়ির একমাত্র উত্তরাধিকারী কারন তার মৃত মাই ছিল এই বাড়ির মালিক।
বিকেলের দিকে ইবেন মিনির কাছে যায়। মিনির বয়স ছিল প্রায় চল্লিশের কাছাকাছি। বৃদ্ধ ক্যাবট ও তার দুই ছেলে সিমন ও পিটার এক সময় তার কাছে তাদের যৌন লালসা চরিতার্থ করতে যাতায়াত করত। সেও একই কাজে তার কাছে যায়। তবে সে ফিরে আসল বৃদ্ধ ক্যাবটের ৩য় বিবাহের খবর নিয়ে। ইবেন ক্যাবটের ৬০০ ডলার চুরি করেছিল যেটা সে গোপন জায়গায় লুকিয়ে রেখেছিল। এই বিবাহের খবর শুনেই সিমন আর পিটার দুই ভাই বুঝতে পেরেছিল তাদের আশায় গুড়েবালি। তারা হয়তো আর তাদের পিতার সম্পত্তি পাচ্ছে না। পিতার সম্পত্তি পাবার আশা বাদ দিয়ে এ সময় তারা ক্যালিফোর্নিয়ার দিকে রওয়ানা হতে চাইলো। কিন্তু তাদের কাছে সেখানে যাওয়ার মত কোন অর্থ ছিল না। ইবেন তাদেরকে তখন প্রস্তাব দেয় সে তারা যদি জাহাজে করে সেখানে যেতে চায়, তাহলে তারা যেন পিতার সম্পত্তিতে তাদের সকল ধরনের দাবি ত্যাগ করে। সে তাদের কে জাহাজে যাওয়ার ভাড়া বাবদ ৬০০ ডলার দিবে। যখন তারা দেখল বৃদ্ধ ক্যাবট তার নতুন বউ এবি কে নিয়ে আসছে তারা তরি ঘরি করে ইবেন এর চক্তিপত্রে সই করে ৬০০ ডলার ও তাদের প্রয়োজনিয় জিনিসপত্র নিয়ে বাড়ি থেকে গান গাইতে গাইতে বেড়িয়ে যায়।  যাওয়ার সময় ক্যাবটের সাথে তাদের দেখা হয়। উভয় পক্ষই বিপক্ষকে অভিশাপ দেয়।
প্রথম দেখায়ই এই খামারবাড়িটি এবির ভালো লেগে যায় এবং তার সৎ ছেলে ইবেনেরও প্রেমে পরে যায়। সে বলে এই বাড়িটি তাহলে আমার, এ কথাটা ক্যাবটের কিছুটা গায়ে লাগে। সে তাকে বলে যে না এটা আমাদের বাড়ি। ইবেনও প্রথম দেখাতেই এবির প্রতি আকর্ষন অনুভব করে কিন্তু সে এই আকর্ষনকে মনের সমস্ত শক্তি দিয়ে বাধা দেয়ায় রত থাকে। কারন সে মনে করে সে তার মায়ের বাড়ি রক্ষার্থে লড়ে চলেছে আর এক্ষেত্রে এবি হল তার নতুন এক শত্রু।
২য় অঙ্কঃ
এবি জানতে পারে ইবেন তার যৌন কামনা চরিতার্থ করার জন্যে মিনির কাছে যায়। এতে করে সে তার প্রতি খুব হিংশা অনুভব করে। সে তাকে মিনির কাছে যেতে বাধা দিলে ইবেন তাকে বলে মিনি তার থেকে শত সহস্র গুন ভাল। কারন মিনি তার প্রতি খেয়াল রাখে। আর এবি এসেছে কৌশলে তার মায়ের সম্পত্তি কুক্ষিগত করার জন্যে। যখন এবি তাকে কোন ভাবেই আকর্ষিত করতে পারে না, তখন ক্যাবট কে সে বলে ইবেন তার চরিত্র নষ্ট করার জন্যে প্রলুব্ধ করার চেষ্ঠা করেছে। প্রথমে ক্যাবট খুব রেগে গেলেও এবিই আবার তাকে শান্ত করে তোলে। এ সময় ক্যাবট তার নিজের একটি ছেলের আশা ব্যাক্ত করে। তখন এবি তাকে কথা দেয় সে তাকে একটি ছেলে সন্তান উপহার দিবে। এটা শুনে ক্যাবটও তাকে কথা দেয় যে সে তাকে তার বাড়ির উত্তরাধিকারী করে দিয়ে যাবে।
২ মাস পরে, কোন এক রাতে ক্যাবট এবির কাছে বর্ণনা করে সে কিভাবে এই বাড়ি ও খামাড় গড়ে তোলে। এক সময় এটা ছিল একটা আগা গোড়া পাথুরে জমি।  তারপর সে অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে এই জমিকে চাষের উপযোগী করেছেন। গড়ে তুলেছেন এই বিশাল খামারবাড়ি। ক্যাবট এক সময় এবিকে বলে কেউই তার আবেগ অনুভূতি ও শ্রমের কোন মূল্য দেয় নি। এর মাঝে এবিও আছে। সে তখন মানসিক শান্তির আশায় গোয়ালের গরু গুলোকে দেখতে যায়। 

No comments:

Post a Comment

Trending