Tuesday, January 19, 2016

তিনটি মিনি গল্প - Three Funny Short Story

Funny Short Story
শিক্ষক ও ছাত্র ছিলেন

চারজন ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র একজায়গায় বেড়াতে গিয়ে তার পরিক্ষা মিস করল। তখন তারা একটা গল্প ফেদে বসলো।""স্যার আমাদের একজনের দাদী মৃত্যুশয্যায় ছিলেন।তাকে দেখতে গিয়েছিলাম।  পরে আসার পথে আমাদের গাড়ির চাকা পাংচার হয়ে গিয়েছিলো।"" তাই সঠিক সময় এসে পরীক্ষা দিতে পারি নাই। এবার তারা স্যারকে পরীক্ষা নেয়ার জন্যে অনুরোধ করল।বারবার অনুরোধে শিক্ষক রাজী হলেন, তবে শর্ত দিলেন একটা, যে, সবাইকে আলাদা রুমে পরীক্ষা দিতে হবে।চার জন কে চার রুমে বসিয়ে পরীক্ষা দিতে বসিয়ে দেয়া হল।      
পরীক্ষায় কেবল একটি প্রশ্নই ছিলো, " গাড়ীর কোন চাকা পাংচার হয়েছিলো??
 শিক্ষাঃশিক্ষকের সাথে মিথ্যা বলোনা।  কারন তিনিও এক সময় ছাত্র ছিলেন।

 দিয়াশলাই

 তিন অপরাধীকে চার বছরের কারাভোগের শাস্তি দেওয়া হয়েছে। বিচারক তাদের প্রতি সদয় হয়ে তাদের একটা সুযোগ করে দিলেন। তাদেরকে বললেন জেলখানায় সময় কাটানোর জন্য তারা চাইলে সঙ্গে কিছু নিতে পারবে। প্রথম অপরাধী সঙ্গে নিল একটা খাতা আর কলম। দ্বিতীয়জন সঙ্গে নিল একটা রেডিও। আর তৃতীয়জন নিল বিশাল এক বাক্স সিগারেট।
 পাঁচ বছর পর প্রথমজন যখন বেরিয়ে এল, তখন দেখা গেল, জেলখানায় তার সময় ভালোই কেটেছে। জেলের জীবন নিয়ে সে একটা উপন্যাস লিখে ফেলেছে। দ্বিতীয়জনও আছে বেশ ভাল সময় পার করেছে। জেলখানায় রেডিওতে গান শুনে তার চমৎকার সময় কেটেছে।
তৃতীয়জন বেরিয়ে এল বিধ্বস্ত অবস্থায়। চুল উসকোখুসকো, উন্মাদপ্রায় । বাক্সভর্তি সিগারেট হাতে নিয়ে সে কাতরস্বরে বলল, কারও কাছে একটা দিয়াশলাই হবে?

 ক্রেডিট কার্ড
 জেলখানায় নতুন কয়েদি এসেছে। নতুন কয়েদির পরিচয় হলো এক পুরোনো, বৃদ্ধ কয়েদির সঙ্গে
 নতুন কয়েদি: আপনি কয় বছর ধরে আছেন?    
পুরোনো কয়েদি: ১০ বছর।
 নতুন কয়েদি: আহা! নিশ্চয়ই খুব কষ্ট হয় আপনার।  
পুরোনো কয়েদি: বললে বিশ্বাস করবে না, আমি একদিন বিল গেটসের মতো জীবন যাপন করেছি। বিলাসবহুল হোটেলে থেকেছি, দামি খাবার খেয়েছি, বউকে দামি গয়না কিনে দিয়েছি  
 নতুন কয়েদি: তারপর?  
পুরোনো কয়েদি: তারপর একদিন, বিল গেটস থানায় অভিযোগ করলেন, তাঁর ক্রেডিট কার্ডটা হারানো গেছে!

No comments:

Post a Comment

Trending