Search This Blog

Total Pageviews

Wednesday, October 30, 2019

Character Analysis - Patroclus - Who Killed Patroclus - Iliad - Homer - Discussion on bangla

Character Analysis  - Patroclus - Who Killed Patroclus - Iliad - Homer - Discussion on Bangla

Character Analysis  - Patroclus - or, Who Killed Patroclus - Achilles or Hector?


প্যাট্রোক্লাস: Patroclus শব্দের অর্থ "glory of the father" মেনোটিয়াসের (Menoetius) ছেলে রাজা একটর (Actor) এর নাতী। ছোটবেলায় খেলাধুলার সময় রাগের বসে প্যাট্রোক্লাস অন্য এক ছেলেকে মেরে ফেলে। এতে প্যাট্রোক্লাসের পিতা মেনোটিয়াস তাকে অ্যাকিলিসের পিতা পিলিয়াসের কাছে দিয়ে দেয়। অ্যাকিলিস প্যাট্রোক্লাস একসাথেই বড় হয়। তাই পাট্রোক্লাস ছিল একিলিসের অন্তরঙ্গ বন্ধু, সহকর্মী, সহমর্মী সহযোদ্ধা। পাট্রোক্লাস রাজা পেলেউসের অভিভাবকত্বে লালিতপালিত হন এবং একজন বীর যোদ্ধা হিসেবে গড়ে ওঠেন একিলিসের পাশাপাশি। ইলিয়াডমহাকাব্যের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র। একিলিস তাঁকে প্রাণের চাইতে বেশি ভালোবাসতেন। ট্রয়যুদ্ধে যখন গ্রিক বাহিনী প্রচণ্ড মার খেতে থাকে তখন তিনি একিলিসের নির্দেশে তাঁরই বর্ম পরিধান করে যুদ্ধে নেমে নিহত হন ট্রয়বীর হেক্টরের হাতে। শুরু হয় একিলিসের দেহ নিয়ে টানাহেঁচড়া। তাঁর মরদেহ একবার প্রবল পরাক্রমে যুদ্ধ করে নিজ আয়ত্তে নিয়ে নেয় ট্রয়পক্ষ আবার গ্রিসবাহিনী প্রবল বিক্রমে ঝাঁপিয়ে পড়ে তার দখল নেয়। এভাবে প্যাট্রোক্লাসের মরদেহ নিয়ে জোর লড়াই চলতে থাকে দুদলের মাঝে। প্যাট্রোক্লাস ট্রয়পক্ষের নয়জন বীর যোদ্ধাকে হত্যা করে নিহত হন। পরিশেষে হেক্টরকে হত্যার মধ্য দিয়ে একিলিস প্যাট্রোক্লাসের মরদেহ আয়ত্তে আনেন। পরবর্তীতে বিশাল এক শোকমিছিলসহ মহা সমারোহে ধর্মীয় রীতিতে জাকজমকের সাথে একিলিস নিজে উপস্থিত থেকে প্যাট্রোক্লাসের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করেন।
প্যাট্রোক্লাসের হত্যার দায়ভার
হোমার তার ইলিয়াড মহাকাব্যে গ্রিকপক্ষের বীর প্যাট্রোক্লাসের মৃত্যুর বিষয়টি পাঠকদের সামনে জটিলতর একটি বিষয় হিসেবে উপস্থাপন করেছেন। কে নেবে তার এই মৃত্যুর দায়, কে নেবে স্কন্দে এই দোষ। বীর একিলিসকে এক্ষেত্রে দুর্বত্তের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে দেখা যায়। যুদ্ধে গ্রিক বাহিনী যখন প্রচণ্ড মার খাচ্ছে ট্রয়বাহিনীর হাতে তখন একিলিসের জাহাজে গিয়ে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয় যুদ্ধে যোগ দেয়ার জন্য এবং তাঁকে মূল্যবান উপঢৌকন প্রদান আর তাঁর বন্দিনীকেও ফিরিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। একিলিস নিজে যুদ্ধে যোগদান না করে তাঁর প্রিয় বন্ধু সহকর্মী প্যাট্রোক্লাসকে যুদ্ধে পাঠান। এমনকি নিজের বর্মটি তাঁকে পরে যুদ্ধে নামতে বলেন, যাতে ট্রোজান সেনারা একে একিলিস মনে করে ভয়ে পালাতে পথ পাবে না। প্যাট্রোক্লাসকে যুদ্ধে পাঠানোর সময় একিলিসের মাঝে যেন একটা স্বার্থপরতার ছোঁয়া লক্ষ করি আমরা, একিলিস যেন খুবই সূক্ষ্মভাবে নিজ স্বার্থকে উপস্থাপন করছেন। তিনি প্যাট্রোক্লাসকে ট্রয়ের বিরুদ্ধে দ্রুত যুদ্ধে নামতে নির্দেশ প্রদান করে বলেন, প্যাট্রোক্লাস, তুমি আমাদের জাহাজগুলো রক্ষা করো, তা না হলে শত্রুরা আগুন ধরিয়ে দেবে সেগুলোতে। আমি যা বলছি সেটাই করো এখন, তাহলে গ্রিকরা আমাকে সম্মান তত করবেই এবং আমার বন্দিনীকেও ফিরিয়ে দেবে। এখানে একিলিস নিজের নিরাপত্তা, নিজের জাহাজ আর নিজের সুখবৈভবের কথা যতটা ভেবেছেন ততটা ভাবেননি পুরো গ্রিক বাহিনীর কথা। সহজ সরল প্যাট্রোক্লাস একিলিসের বর্ম পরিধান করে নিজেকে একিলিসের প্রায় সমতুল্য মনে করে এগিয়ে গেছেন যুদ্ধক্ষেত্রে। এক্ষেত্রে ট্রয়যুদ্ধে প্যাট্রোক্লাসের মৃত্যুর জন্য একিলিসই দায়ী তিনি নিজে যুদ্ধে যোগদান না করে নিজের সম্মান আর স্বার্থকে উদ্ধারকল্পে তিনি তার বন্ধুকে যুদ্ধে প্রেরণ করেছেন। প্যাট্রোক্লাস যখন একিলিসের বর্ম পরিধান করে যুদ্ধে নেমেছেন তখন নিজেকে তিনি একিলিস সমতুল্য বীরই মনে করেছেন এবং দৃঢ়প্রত্যয়ে সম্মুখে অগ্রসর হয়ে নিজের মৃত্যুকে ডেকে এনেছেন। তাঁকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়ার জন্য একিলিসই দায়ী। অন্যদিক থেকে বলা চলে, হেক্টর আর একিলিস দুজনই প্যাট্রোক্লাসের মৃত্যুর জন্য দায়ী।


No comments:

Post a Comment

Popular Posts