Thursday, August 9, 2018

Song of innocence – William Blake – Bangla translation and summary




Song of innocence – William Blake – Bangla translation and Summary 

জনশূন্য উপত্যকায় বাজাইনু বাশি
আনন্দ রাগিনী সব জড়ো হলো আসি।
এক শিশু দেখি আমি মেঘ মালা 'পরে,
হেসে হেসে সেই শিশু অনুরোধ করেঃ

গান কর, গান কর, মেষ শাবকের '
তাই আমি সুর তুলি অতি আনন্দের।
বংশীবাদক বাজাও আবার তোমার সে গান'
কেদে উঠে মেঘ-শিশু সেই তান।

'রেখে দাও, রেখে দাওতব সুখের বাশি,
গান গাও, গান গাও, আনন্দ রাশি।
একই গান তাই আমি গাইলাম আবার
শুনে আনন্দ অশ্রু ধরলো যে তার।

বাশিওয়ালা বসে পড়ে, লিখে রাখ গান,
সবে যেন পড়তে পারে ভরে গো পরান।
চোখের আড়ালে যবে শিশু চলে যায়,
কেটে তুললাম এক নলখাগড়ায়।

গ্রাম্য কলম এক করে তৈয়ার,
ঘোলা করলাম পানি, ছিল পরিষ্কার।  
লিখে রাখি আমার সেই সুখের সংগিত,
প্রতি শিশু সুখ পাবে শুনে এই গীত।

সার সংক্ষেপ

কবি প্রথা অনুসারে তার কাব্যসংগ্রহের বন্দনা স্বরুপ এই কবিতা টি লিখেছেন। তিনি কল্পনায় নিজেকে একজন মেষপালক হিসেবে দেখেন আর এক শিশু খুজে পান যে কিনা মেঘের উপরে উড়ে বেড়াচ্ছে। আর কবিকে উতসাহিত করে চলছে এই লেখা গুলো লিখে রেখে যাবার জন্যে। সেই কবিতা হবে একটি মেষকে নিয়ে। বাশির সুর শুনে শিশুটি তাকে সেই গানটি গেয়ে শোনানোর অনুরোধ জানায়। এরপর শিশুটি গানটি লিখে ফেলার অনুরোধ করে। কারন ভবিষ্যতে অন্য শিশুরা এই গান শুনে আনন্দ লাভ করতে পারে। তাই কবি নলখাগড়া দিয়ে একটি কলম ও পানিতে রঙ মিশিয়ে কালি প্রস্তুত করেন। শেষে সেগুলো লিখে ফেলেন।
Reactions:

0 comments:

Post a Comment

Popular Posts